ঈদ শেষে আজ বাড়ি থেকে ঢাকা ফিরলাম। অনেকেই টিকেট পাচ্ছেনা। ভাগ্যিস সপ্তাহখানেক আগেই টিকেট করে রেখেছিলাম ! ট্রেনে বসেই হুমায়ূন আহমেদ এর “মৃন্ময়ীর মন ভালো নেই ” বইটা শেষ করে ফেললাম । ভালোই লাগলো, আসলে হুমায়ূন আহমেদ এর লেখা পড়তে আমার কখনোই খারাপ বা বোর লাগেনা। তবু কাউকে কাউকে বলতে শুনি, ‘ তুমি এখনো হুমায়ূন আহমেদ এর বই পড়ো !’ যাই হোক, বইটি পড়ে মজার কিছু তথ্য জানলাম –

=> তাস এর প্যাকেট এ চার ধরনের কার্ড থাকে – স্পেড, ক্লাভস, ডায়মন্ড এবং হার্ট। এ চার ধরন হচ্ছে চার ঋতুর প্রতীক – শীত, গ্রীষ্ম, শরৎ, হেমন্ত।
=> প্রতি গ্রুপে তাস আছে তেরোটা করে। এই তেরো হলো লুনার (চাঁদ) সাইকেলের প্রতীক । বৎসরে লুনার সাইকেল আছে তেরোটা ।
=> আবার তাসের নম্বরগুলি যোগ করলে যোগফল হয় ৩৬৫, একটা বৎসরে দিনের সংখ্যা হলো ৩৬৫। অর্থাৎ অতিরিক্ত একটি জোকারের মান ১ এবং গোলাম ১১, বিবি ১২, সাহেব ১৩ ধরে যদি যোগ করা হয় ।

আমি তাস খেলা পারিনা । কিন্তু এই ব্যাখ্যাগুলো সত্যি হলে সুন্দর হতো …
কেউ কি আমাকে নিশ্চিত করবে ?

Advertisements